‘ইরানে সরকার পরিবর্তন করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র’

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি অভিযোগ করেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ইরানের সরকার পরিবর্তনের চেষ্টা করছে। কিন্তু ওয়াশিংটনের সব ষড়যন্ত্র ইরান ব্যর্থ করে দেবে।

শনিবার তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাবর্ষ শুরু উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেছেন।

রুহানি বলেছেন, ‘ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান ও এর সরকারের বিরুদ্ধে বর্তমান মার্কিন প্রশাসন যতটা বিদ্বেষপূর্ণ গত ৪০ বছরে এতটা বিদ্বেষী মার্কিন সরকার কখনো ছিল না।

তিনি বলেছেন, ‘একটা সময় ছিল যখন একজন ব্যক্তি ইরানের সঙ্গে শত্রু করতেন । অন্যরা মধ্যমপন্থা অবলম্বন করতেন কিন্তু এখন সব নিকৃষ্ট ব্যক্তিগুলো একসঙ্গে জড়ো হয়েছে।’

ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ দিয়ে শুরু করেছে। তাদের পরবর্তী লক্ষ্য হচ্ছে অর্থনৈতিক যুদ্ধ। তারা ইরানকে অকার্যকর বলে চিহ্নিত করতে চায় এবং তাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য হচ্ছে ইরানে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির মাধ্যমে সরকার ব্যবস্থা পরিবর্তন করা।’

গত আগস্টে ইরানের ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় ইরানি মুদ্রা, ইস্পাত ও অটোমোবাইল পণ্য অর্ন্তভূক্ত করা হয়েছে। আগামী মাসে ইরানের তেলও এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনা হবে। এ কারণে অনেক ইরানি মনে করছেন ২০১২ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার কারণে দেশটিতে যে অর্থনৈতিক দুর্দশা দেখা দিয়েছিল এবারের নিষেধাজ্ঞার প্রভাব তারচেয়েও খারাপ হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × one =