সিটি নির্বাচনে কারচুপি হলে জনগণ জবাব দেবে : চরমোনাই পীর

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেছেন, কারচুপির নির্বাচন বন্ধ করে সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে হবে। অতীতের মতো সিটি নির্বাচনে কারচুপি হলে জনগণ সরকারকে সমুচিত জবাব দেবে।

শনিবার বিকেলে দলের পুরানা পল্টন অফিস চত্বরে ইসলামী যুব আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেছেন।

চরমোনাই পীর বলেন, ‘সরকারকে অতীত থেকে শিক্ষা নিতে হবে। মানুষের সম্পদ দিয়ে ভোট ডাকাতির নির্বাচন করলে, জনগণ তা সহ্য করবে না। কারচুপির নির্বাচন সরকারকে ভয়াবহ পরিণতির দিকে ঠেলে দেবে।’ তিনি তিন সিটি নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের দাবি জানান।

কেন্দ্রীয় সভাপতি কে এম আতিকুর রহমানের সভাপতিত্বে আয়োজিত সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী, মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান ও মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম।

মাওলানা মাদানী বলেন, যুব আন্দোলন দেশের ভবিষ্যৎ। মানুষ পরিবর্তন চায়, তাই যুব আন্দোলন, ছাত্র আন্দোলনসহ ইসলামী আন্দোলনের সব কর্মীকে ব্যাপক প্রচারণা চালিয়ে হাতপাখার বিজয় আনতে হবে।

মহাসচিব অধ্যক্ষ ইউনুছ আহমাদ বলেন, দেশের মানুষ শান্তি চায়, যুব আন্দোলন শান্তিপূর্ণ সংগঠন। দেশের রাজনীতির আকাশে কালো মেঘের ঘনঘটা। পীর সাহেব চরমোনাই’র নেতৃত্বে কালো মেঘ দূর করে স্বচ্ছ রাজনীতির আকাশ তৈরির জন্য যুব আন্দোলনকে যথাযথ ভুমিকা রাখতে হবে।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দলের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, উত্তরের সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শরিফুল ইসলাম তালুকদার, সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা মুহাম্মাদ নেছারউদ্দিন, ছাত্রনেতা মু. হাসিবুল ইসলাম প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 3 =