আদা চায়ের স্বাস্থ্য উপকারিতা

সকালে কিংবা বিকালের নাস্তায় চা চাই-ই চাই। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা চা ছাড়া যেনো জমেই না। ক্লান্তি, অবসাদ দূর করতে চায়ের জুড়ি নেই-একথা সবারই জানা। এই চায়ের সঙ্গে যদি একটু আদা যোগ করেন তবে এর স্বাদ, গন্ধ বেড়ে যায় বহুগুণ। পাশপাশি আদা চা আপনাকে অনেক রোগ থেকে দূরে রাখবে।

রক্ত সঞ্চালনের উন্নতি

আদা চায়ের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন, খনিজ এবং অ্যামিনো অ্যাসিড যা রক্ত সঞ্চালনে সহায়তা করে এবং এর ফলে কার্ডিওভাসকুলার সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা অনেকাংশে কমে যায়।

বমি ভাব দূর করতে

দূরে কোথাও ভ্রমণের সময় আমাদের অনেকেরই একটি সমস্যা হয়, আর তা হল বমি হওয়া কিংবা বমি বমি ভাব। তাই ভ্রমণের পূর্বে এক কাপ আদা চা খেলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এক কাপ আদা চা আপনার বমি বমি ভাব থেকে মুক্তি দিতে পারে।

পাকস্থলীর কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি

আদা চা খাবার হজমের ক্ষেত্রে খুব সহায়ক। এছাড়া খাওয়া বেশি হয়ে গেলে এক কাপ আদা চা পান করুন। এটা পাকস্থলীকে স্ফীত করে অতিরিক্ত খাবার শোষণ করতে পারে।

রক্ত সঞ্চালনের উন্নতি

আদা চায়ের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন, খনিজ এবং অ্যামিনো অ্যাসিড যা রক্ত সঞ্চালনে সহায়তা করে এবং এর ফলে কার্ডিওভাসকুলার সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা অনেকাংশে কমে যায়।

হার্ট অ্যাটার্ক ও স্ট্রোকের ঝুকি কমায়

আদা চা নিয়মিত পান করা হলে এটা ধমনীতে চর্বি জমতে বাধা দেয় যার। ফলে হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুকি অনেকাংশে কমে যায়।

শ্বাসকষ্টের সমস্যা থেকে মুক্তি

ঠান্ডা লাগা থেকে যেসব শ্বাসকষ্টের সমস্যাগুলো হয় তা আদা চা পান করলে উপশম হয়। এছাড়া ধুলাবালি কিংবা পরিবেশগত কারণে যেসব অ্যালার্জি জনিত সমস্যা হয় তা আদা চা পান করলে ভাল হয়।

মানসিক চাপ কমায়

আদা চায়ে রয়েছে এমন কিছু গুণাগুণ যা আপনার মানসিক চাপ এবং দুশ্চিন্তা কমাতে সাহায্যে করে। এই পানীয়তে থাকা প্রচুর পরিমানে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরে শক্তি বৃদ্ধি করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 4 =