চুইংগাম গিলে ফেললে যা ঘটে

অনেকেরই ধারণা, চুইংগাম গিলে ফেললে তা পেটে ৭ বছর পর্যন্ত থেকে যায়। এটা সঠিক নাকি ভ্রান্ত ধারণা- চলুন প্রকৃত সত্য জেনে নেওয়া যাক।

মানবদেহ বিস্ময়কর ক্ষমতাসম্পন্ন যা আসলে ভাবতেও অবাক লাগে। যেমন: প্রতি সেকেন্ডে ৩০ লাখ রক্তের কোষ সৃষ্টি কিংবা প্রেমে পড়লে মস্তিষ্কের অদ্ভুত আচরণ। কিন্তু দুঃখজনকভাবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে, মানবদেহের অবিশ্বাস্য ক্ষমতাকে হ্রাস করা হয়। এর সেরা একটি উদাহরণ হচ্ছে, অনেকেই বিশ্বাস করেন যে- চুইংগাম গিলে ফেললে তা ৭ বছর পর্যন্ত পেটে থেকে যাবে। কানাডার ম্যাপল হলিস্টিক্সের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ক্যালেব বেক বলেন, ‘এই রুপকথাটি ততটাই সত্য যতটা তরমুজের বীজ গিলে ফেললে পেটে তরমুজের গাছ গজানোর ব্যাপারটি।’

আসলে চুইংগাম গিলে ফেললে তা আপনার পেটে ৭ বছর অবধি থাকার কোনো সম্ভাবনা নেই। এটা সত্যি যে, চুইংগামের সিন্থেটিক অংশ হজম হওয়া সম্ভব নয়। তার মানে এই নয় যে, চুইংগাম গিলে ফেললে তা ৭ বছর অবধি পেটের মধ্যে থেকে যাবে। চুইংগাম গিলে ফেলার পর তা বেশি হলে এক সপ্তাহ পেটে থাকতে পারে। পাকস্থলী প্রতিনিয়ত গিলে ফেলা খাদ্যদ্রব্যকে প্রথমে ইন্টেস্টাইন তারপর কোলনে পাঠিয়ে দেয় যা পরে মলে পরিণত হয়ে শরীর থেকে বেরিয়ে যায়।

চুইংগামের সঙ্গে থাকা চিনির নির্যাস এবং ফ্লেভারগুলো হজম হয়ে যায়। যাহোক, চুইংগাম গিলে ফেললে তা আমাদের দেহের কোনো উপকারে আসে না। শিকাগো ইউনিভার্সিটির একজন পাকস্থলী বিশেষজ্ঞ এডুইন ম্যাকডোনাল্ড বলেন, ‘প্রায়ই যদি কেউ চুইংগাম গিলে ফেলে তাহলে তা অন্ত্রে ব্যাঘাত সৃষ্টি করতে পারে।’

তার মানে এই নয় যে, আপনি মাঝে মধ্যে চুইংগাম গিলে ফেলতে পারেন। এমনটা করা মোটেও ঠিক হবে না। এ ধরনের অভ্যাস না করাটাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। সবচেয়ে ভালো হয় চুইংগাম খাওয়ার পর তৃপ্তি মিটে গেলে আপনি যদি সেটা থু করে ফেলে দেন।

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 3 =