২৮ মার্চ খালেদাকে কুমিল্লা আদালতে হাজিরের নির্দেশ

জেলার চৌদ্দগ্রামে যাত্রীবাহী কোচে বোমা হামলায় আট যাত্রী হত্যা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন গ্রহণ করে পরবর্তী তারিখে তাকে হাজির করার নির্দেশ দিয়েছেন কুমিল্লার একটি আদালত।

সোমবার এ আদেশ দেন কুমিল্লার পাঁচ নম্বর আমলি আদালতের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিচারক মো. মুস্তাইন বিল্লাহ। তিনি মামলার পরবর্তী তারিখ ২৮ মার্চ খালেদাকে হাজির করার আদেশ দেন বলে জানিয়েছেন আদালত পুলিশের পরিদর্শক সুব্রত ব্যানার্জী।

সুব্রত ব্যানার্জী বলেন, সোমবার গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন গ্রহণ করে পরবর্তী তারিখে খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজিরের জন্য পরোয়ানা কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বিকেলে পরোয়ানা কারাগারে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু বলেন, এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ২৪ এপ্রিলে তামিল করার নির্দেশ দিয়েছিলেন একই আদালত। আমরা জামিনের আবেদন তৈরি করে প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু বিএনপি চেয়ারপারসনকেইে মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়নি বলে জামিন চাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, মামলার পরবর্তী দিন ধার্য করা রয়েছে ২৮ মার্চ। আগামী তারিখের আগে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা তামিল করতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে একটি বাসে পেট্রোল বোমায় আট যাত্রী দগ্ধ হয়ে মারা যায়। আহত হয় ২০ জন। ওই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনসহ ৪৭ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 − 6 =