শাকিব-অপুর সংসার ভাঙার বলি ‘লাভ-২০১৬’

রুপালি পর্দায় একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শনের পেছনে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয় সংশ্লিষ্টদের। পরিচালকের স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে প্রযোজক অর্থ লগ্নী করেন। পাশাপাশি লগ্নীকৃত অর্থ ফেরতসহ লাভের স্বপ্নও দেখেন তিনি। এই স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে অভিনয়শিল্পী, কণ্ঠশিল্পী, ক্যামেরা ম্যান, মেকআপ ম্যান, নৃত্য পরিচালকসহ সিনেমাসংশ্লিষ্টদের সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। সকলের সহযোগিতায় নির্মিত হয় একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। সহযোগিতায় একুট ছেদ পড়লে থেমে যেতে পারে একটি চলচ্চিত্র। ভেঙে যেতে পারে স্বপ্ন। যেমন ভেঙে গেছে জি সরকার পরিচালিত ‘লাভ-২০১৪’ সিনেমার স্বপ্ন।

মেঘমালা কথাচিত্রের প্রযোজনায় নির্মিতব্য এই সিনেমায় জুটি বেঁধে অভিনয় করেন চিত্রনায়ক শাকিব খান ও চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। ২০১৪ সালে শুরু হয় সিনেমার শুটিং। নানা কারণে সে বছর এর দৃশ্য ধারণ শেষ করতে পারেননি নির্মাতা। তাই সিনেমাটির নাম পরিবর্তন করে পরবর্তী সময়ে ‘লাভ-২০১৫’ করা হয়। সে বছরও সিনেমাটি আলোর মুখ দেখতে পায়নি। বাধ্য হয়ে তৃতীয় দফায় নাম পরিবর্তন করে ‘লাভ-২০১৬’ রাখা হয়েছে। সে বছর হঠাৎ করে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস উধাও হওয়ায় সিনেমাটির কাজ আবারও থেমে যায়। যদিও সেসময় মাতৃত্বজনিত কারণে অপু দীর্ঘ এক বছর অন্তরালে ছিলেন। তিনি ফিরবেন এই আশা নিয়ে ২০১৬ সালের শেষের দিকে আবার শুটিং শুরু করেন এই নির্মাতা। সে সময় তিনি বলেছিলেন, সিনেমার নাম আর পরিবর্তন করবেন না। এবং সে বছরই শুটিং শেষ করে সিনেমা মুক্তি দেবেন। কিন্তু বিধিবাম! সে বছরও শিডিউল জটিলতায় শুটিং করতে পারেননি এই নির্মাতা।

২০১৭ সালে অপু বিশ্বাস দেশে ফিরলেও শাকিব খানের শুটিং শিডিউল পাচ্ছিলেন না পরিচালক। অপু বিশ্বাস দেশে এসে গণমাধ্যমের সামনে শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে ও সন্তানের কথা জানানোর পর থেকেই শাকিব অপুর সম্পর্কে ভাঙন ধরে। ঘটনা ডিভোর্স পর্যন্ত গড়ায়। ফলে এই ২০১৮ সালে এসেও হতাশার কথা শোনালেন নির্মাতা জি সরকার। এ প্রসঙ্গে তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘শাকিব খানের শিডিউল মিলাতে পারলেই কাজটি শেষ করতে পারতাম।’ শাকিব খানের সঙ্গে কথা হয়েছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘শাকিব খানের সঙ্গে দেখা করাটাই তো কঠিন। তিনি এখন প্রায় সময় দেশের বাইরে থাকেন। তার শিডিউলের কারণেই সিনেমাটির শুটিং আটকে আছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এই সিনেমার শুটিং শেষ না করে নতুন সিনেমার শুটিংয়ে হাত দিতে পারছি না। এই সিনেমার কাজ প্রায় শেষ। কিছু অংশের জন্য পুরো সিনেমা আটকে আছে। এতে অনেক টাকা লগ্নী করেছেন প্রযোজক। সিনেমাটি মুক্তি দিতে না পারলে পুরো টাকা লোকসান হবে।’

ইসরাত জাহান নিবেদিত এই সিনেমার মাধ্যমে দীর্ঘদিন পর শাকিব, অপু ও নিপূণ একসঙ্গে অভিনয় করছেন। এই ত্রয়ীর সর্বশেষ অভিনীত সিনেমা মোহাম্মদ হোসেনের ‘নাম্বার ওয়ান শাকিব খান’। সিনেমাটি দারুণ ব্যবসা সফল ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 + 16 =