‘চ্যাম্পিয়ন’কে ছাড়া চ্যাম্পিয়ন হতে চান মাহমুদউল্লাহ

সাকিব আল হাসানকে ‘চ্যাম্পিয়ন’ খেলোয়াড় মনে করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সেই ‘চ্যাম্পিয়ন’ খেলোয়াড়কে ছাড়াই নিদাহাস ট্রফি জিতে চ্যাম্পিয়ন হতে চান মাহমুদউল্লাহ।

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বিবেচনায় মাহমুদউল্লাহর প্রত্যাশা আকাশচুম্বি। তবুও আশা দেখালেন নিদাহাস ট্রফিতে অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া মাহমুদউল্লাহ। জানালেন, নিজেদের কাজটুকু ঠিকমতে করতে পারলে বাংলাদেশ পৌঁছাতে পারবে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে।

আজ সকালে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ঢাকায় পৌঁছে দুপুর ১টায় শ্রীলঙ্কার বিমান ধরেন মাহমুদউল্লাহ। মাঝে গণমাধ্যমের সামনে কথা বলার সময় বলেছেন, ‘লক্ষ্য অবশ্যই টুর্নামেন্ট জেতা। সবার ব্যক্তিগত সেরাটা যদি আমরা আদায় করে নিতে পারি, আমার মনে আমাদের খুব ভালো কিছু অর্জন করা সম্ভব।’

ক্রিকেটের ছোট্ট ফরম্যাটে বড় সাফল্য না পাওয়ায় বাংলাদেশ শিবিরে হাহাকারের শেষ নেই। জাতীয় দলের ড্রেসিং রুমে একটু কান পাতলেই শোনা যায় সেই হাহাকারের সুর। নিজেদের শক্তি ও সামর্থ্য নিয়েও রয়েছে প্রশ্ন। মাহমুদউল্লাহ গত হোম সিরিজে সেই কথা বলেছিলেন আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে। নিজেদের নামের পাশ থেকে সেই প্রশ্নবোধক চিহ্ন মুছে দেওয়ার চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন দলপতি।

‘আমাদের অনেক কিছু করার বাকি আছে। অনেক কিছু প্রমাণ করার বাকি আছে। আমরা কতটুকু ভালো করতে পারি এই সংস্করণে…একটা প্রশ্নবোধক চিহ্ন আছে এই সংস্করণের আমাদের শক্তিমত্তা নিয়ে। এটা আমাদের জন্য খুব ভালো একটা প্ল্যাটফর্ম আমাদের নিজেদেরকে প্রমাণ করার জন্য’- বলেছেন মাহমুদউল্লাহ।

চ্যাম্পিয়ন সাকিবকে হারিয়ে বাংলাদেশ দল পিছিয়ে রয়েছে আগেই। তার অভাব পূরণ করা কঠিন, তা সাফ জানিয়েছে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ কোর্টনি ওয়ালশ। মাহমুদউল্লাহর কন্ঠেও একই সুর, ‘সাকিবকে মিস করা অবশ্যই দলের জন্য ক্ষতিকর। ও চ্যাম্পিয়ন খেলোয়াড়, অপরিহার্য খেলোয়াড়। ওকে মিস করা অবশ্যই আমাদের জন্য কঠিন। তারপরও আমাদের সবার জন্য সুযোগ ভালো কিছু করে দেখানো।’

প্রতিপক্ষকে নিয়ে ভাবনা নেই দলে। বাংলাদেশ ভাবছে প্রথম ম্যাচ নিয়ে। প্রথম ম্যাচে ভালো শুরু পেলে শেষটাও রাঙাতে পারবে টাইগাররা। প্রথম ম্যাচ জিতে যে আত্মবিশ্বাস পাবে, সেটা কাজে লাগাতে চায় পরবর্তী ম্যাচগুলোতেও।

স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা, ভারত ও বাংলাদেশকে নিয়ে আগামী ৬ মার্চ শুরু হবে টি-টোয়েন্টি ত্রিদেশীয় সিরিজ নিদাহাস ট্রফি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × three =