‘এটা দুর্নীতিবাজ রাজনীতিকদের জন্য সতর্কবার্তা’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দুর্নীতির দায়ে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে যে রায়, এটা দুর্নীতিবাজ রাজনীতিকদের জন্য সতর্কবার্তা।

আজ শনিবার সকালে নারায়ণগঞ্জের মেঘনাঘাটে মেঘনা সেতুর সুপারস্ট্রাকচার কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ সব কথা বলেন। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘‘রায়ে আগে রাতের আধারে বিএনপি তাদের গঠনতন্ত্র থেকে ৭নং ধারা তুলে দিয়ে প্রমাণ করেছে তারা আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ।’’

বিএনপির গঠনতন্ত্রের ৭নং ধারার ‘ঘ’তে বলা ছিল, ‘সমাজে দুর্নীতিপরায়ণ বা কুখ্যাত বলে পরিচিত ব্যক্তি’ বিএনপির কোনো পর্যায়ের কমিটির সদস্য কিংবা জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের প্রার্থীপদের অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। দল ভাঙার চেষ্টায় হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার হতে পারে, এই আশঙ্কায় গঠনতন্ত্রের একটি ধারা বাদ দেয় বিএনপি। গত ২৮ জানুয়ারি সংশোধিত গঠনতন্ত্র নির্বাচন কমিশনে জমা দেয় দলটি।

মন্ত্রী বলেন, ‘‘আমরা এখন উন্নয়নের কাজ করছি। আমাদেরও জেল-জুলুম খাটতে হয়েছে। আমি নিজে চার বছর জেল খেটেছি।’’

শীতলক্ষ্যা নদীর ওপর কাঁচপুর দ্বিতীয় সেতু, মেঘনা নদীর ওপর মেঘনা দ্বিতীয় সেতু এবং গোমতী নদীর ওপর গোমতী দ্বিতীয় সেতুর নির্মাণকাজ নির্ধারিত সময়ের আগেই শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০১৯ সালের জুন মাসে এই তিনটি সেতু নির্মাণ প্রকল্পের সময়সীমা বেধে দেওয়া হলেও চলতি বছরের নভেম্বর মাসের মধ্যে নির্মাণ শেষ হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তিনটি সেতু উদ্বোধন করবেন।

তিনি জানান, প্রায় ১২ হাজার কোটি টাকার এই প্রকল্পে ৭০০ কোটি টাকা সাশ্রয় হবে। এই সেতু নির্মাণে জাইকা বিশ্বের সবচেয়ে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করেছে এবং এই সেতুর মেয়াদকাল ১০০ বছরের নিশ্চয়তা দিয়েছে। দেশের ১৬ কোটি মানুষের জন্য এই তিনটি সেতু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এ সময় সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × one =