রোহিঙ্গা নির্যাতনে দায়ীদের বিচারের আহ্বান জানাবে আসিয়ান

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতার জন্য দায়ীদের ‘সম্পূর্ণভাবে বিচারের’ আহ্বান জানাবে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর জোট আসিয়ান। আসিয়ান সম্মেলনের চেয়ারম্যানের বক্তব্যের খসড়া পর্যালোচনা করে বার্তা সংস্থা রয়টার্স মঙ্গলবার এ তথ্য জানিয়েছে।

১০ সদস্যের আসিয়ান জোটের সম্মেলনে সমাপনী বক্তব্য রাখবেন সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন লুং। এতে রাখাইনের ‘বিষয়টি উদ্বেগের’ বলে উল্লেখ করা হলেও শেষ মুহূর্তে বিবৃতিতে হয়তো পরিবর্তন আসতে পারে বলে জানিয়েছে রয়টার্স। মঙ্গলবার রাতে খসড়াটি চূড়ান্ত করা হবে। তবে খসড়া বিবৃতির ব্যাপারে সিঙ্গাপুরের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য করা হয়নি। মিয়ানমার সরকারের মুখপাত্র জ হতেও এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।

খসড়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘মানবাধিকার লঙ্ঘন ও সংশ্লিষ্ট ইস্যুগুলোতে এবং যারা দায়ী তাদের সম্পূর্ণভাবে বিচার করতে আমরা মিয়ানমার সরকারকে একটি স্বাধীন ও নিরপেক্ষ তদন্ত পরিচালনার জন্য স্বাধীন তদন্ত কমিশন গঠনের আহ্বান জানাচ্ছি।’

২০১৭ সালের আগস্টে রোহিঙ্গাদের দেশছাড়া করতে তাদের ওপর নির্যাতন শুরু করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। প্রাণে বাঁচতে এ পর্যন্ত প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংগঠন এর জন্য মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে দায়ী করেছে। ব্যাপক আন্তর্জাতিক সমালোচনা সত্ত্বেও মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের নেত্রী অং সান সুচি রোহিঙ্গা ইস্যুতে একেবারেই নীরব ভূমিকা নিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two + 15 =