বাহরাইনের বিরোধী দলীয় নেতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

কাতারের পক্ষে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বিরোধী দলীয় নেতা শেইখ আলি সালমানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে বাহরাইনের আদালত। রোববার দেশটির আপিল আদালত এ রায় দিয়েছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

কয়েক মাস আগে বাহরাইনের হাই কোর্ট সালমানকে বিরোধী রাষ্ট্রের সঙ্গে ‘আঁতাতের’ অভিযোগে অভিযুক্ত করেছিল। ২০১৭ সালে কাতারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে বাহরাইন।

মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘ভিন্ন মতাবলম্বীদের ওপর বাহরাইন যে নিপীড়ন চালাচ্ছে’ তার মধ্যে এই রায় ‘বিচারের হাস্যকর অনুকরণ।’

আলি সালমানের বিরুদ্ধে ২০১১ সালে তার নিষিদ্ধঘোষিত দল আল-ওয়েফাক এবং অপর বিরোধী দলীয় নেতা হাসান সুলতান ও আলি আল আসওয়াদকে সঙ্গে নিয়ে সরকার বিরোধী বিক্ষোভের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হয়। ওই ষড়যন্ত্রে কাতারের মদদ ছিল বলেও দাবি করা হয়েছে।

বাহরাইনের সরকারি কৌঁসুলি জানিয়েছেন, এই তিনজনের বিরুদ্ধে বাহরাইনের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ এবং কাতারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে সাংবিধানিক সরকারকে উচ্ছেদের প্রচেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে।

তবে বিবিসি জানিয়েছে, এই অভিযোগ সাত বছর আগে আনেনি বাহরাইন সরকার। গত বছর কাতারের সঙ্গে বাহরাইন, সৌদি আরব, আরব আমিরাত ও মিশরের সম্পর্ক ছেদ করার পর সাত বছর আগের অভিযোগকে সামনে নিয়ে আসা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 + 8 =