সংকট নিরসনে কেনা হচ্ছে রেলের ৭০ ইঞ্জিন

সংকট নিরসনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ৭০টি মিটারগেজ লোকোমোটিভ ইঞ্জিন কিনবে সরকার।

বুধবার সকালে রেলভবনে এ লক্ষ্যে কোরিয়ার নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান হুন্দাই রোটেমের সাথে এক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

চুক্তিতে বাংলাদেশের পক্ষে প্রকল্প পরিচালক আব্দুল মতিন চৌধুরী এবং হুন্দাই রোটেমের পক্ষে গ্লোবাল রেল হুন্দাই রোটেম এর পরিচালক কোয়াং কুন ইউন স্বাক্ষর করেন। এ সময় কোম্পানির প্রেসিডেন্ট ও সিইও সিউয়ং ট্যাক কিম উপস্থিত ছিলেন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন, মহাপরিচালক মো. কাজী রফিকুল আলম, নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ে ইঞ্জিন সংকটে ভুগছে। ৭১ শতাংশ ইঞ্জিনের আয়ুস্কাল শেষ হয়েছে। তারপরও আমাদের মেরামত করে কোনোরকমে চালাতে হচ্ছে। কাজেই এটি রেলওয়ের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি।

ইঞ্জিন পাওয়া শুরু করলে অধিক পরিমাণে বিভিন্ন রুটে ট্রেন চালানো সম্ভব হবে এবং এর মাধ্যমে বেশি করে রাজস্ব আহরণ করা যাবে বলে মন্ত্রী জানান।

চুক্তি অনুযায়ী ১৮ থেকে ৬০ মাসের মধ্যে সব ইঞ্জিন সরবরাহ করবে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান। টেন্ডারার্স ফাইনান্সের মাধ্যমে এবং বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে এগুলো ক্রয় করা হচ্ছে। বাংলাদেশি টাকায় চুক্তি মূল্য ১ হাজার ৯৮৬ কোটি ৫৩ লাখ ৪০ হাজার ৬০৮ টাকা।

বর্তমানে বাংলাদেশ রেলওয়েতে ১৭৮টি মিটারগেজ লোকোমোটিভ রয়েছে যার মধ্যে ১৩৯টির অথনৈতিক আযুস্কাল (২০ বছর হিসাবে) শেষ হয়ে গেছে। কাজেই দ্রুত এসব ইঞ্জিন প্রতিস্থাপনের জন্য নতুন ইঞ্জিন পাওয়া খুবই দরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 − six =