‘সাজানো ছকে বিএনপির শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা’

সরকার একতরফা নির্বাচন করতেই ছক সাজিয়ে বিএনপির মহাসচিবসহ শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘দলের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের কাছে আষাঢ়ে গল্পের একটা ফরমেট সবসময়ই প্রস্তুত থাকে। সেই ফরমেটের ধারাবাহিকতায় মহাসচিবসহ জ্যেষ্ঠ নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হয়েছে।’

‘সরকার একতরফা নির্বাচন করতে ছক ধরে এগোচ্ছে। সারা দেশ নিঃশব্দ ও জনশূন্য করার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের পথে জ্যেষ্ঠ নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের এই ঘটনা সেটিরই প্রথম পদক্ষেপ বলে আমরা মনে করি’, বলেন রুহুল কবির রিজভী।

বিএনপির জনসভার পর সরকার প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে উঠেছে, দাবি করে তিনি বলেন, এর পরেই দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের তালিকা ধরে তাদের বিরুদ্ধে রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় পুলিশের কাজে বাধা ও নাশকতার হাস্যকর, মিথ্যা, বানোয়াট, ষড়যন্ত্রমূলক মামলা পুলিশ দিয়েছে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের বক্তব্যের সমালোচনা করেন বিএনপির এই নেতা।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন সিনিয়র সাংবাদিকরাই সম্পাদক পদে উন্নীত হন। তারা সমাজের সঙ্গতি-অসঙ্গতি, শুভ-অশুভসহ নানা বিষয় গণমাধ্যমে প্রতিফলনের প্রধান দায়িত্ব পালন করেন। অথচ তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টার মতে, এই সমস্ত গুণী ব্যক্তিদের নৈতিকতা নেই। তাহলে নৈতিকতা আছে কাদের- আমি এই কথাটি জানতে চাই প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা মহোদয়ের কাছ থেকে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য তৈমুর আলম খন্দকার, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব, আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, আবদুস সালাম আজাদ, আসাদুল করীম শাহিন, মুনির হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 2 =