এবার ম্যাংখুতের আঘাতে লণ্ডভণ্ড হংকং

সুপার টাইফুন ম্যাংখুত ফিলিপাইনের পর এবার হংকং উপকূলে আঘাত হেনেছে। রোববার এটি দক্ষিণ চীন সাগর এলাকায় শক্তি সঞ্চয় করে চীন উপকূলের দিকে এগুতে শুরু করে।

ঘন্টায় ১০০ কিলোমিটার বাতাসের বেগ নিয়ে হংকং, চীনের পশ্চিম উপকূলের গুয়াংডং প্রদেশ ও ম্যাকাওতে টাইফুনের আঘাত হানার কথা উল্লেখ করে সতর্কতা হিসেবে হংকংয়ে সর্বোচ্চ ১০ মাত্রার বিপদসংকেত জারি করে কর্তৃপক্ষ। সকালের পর টাইফুনের আঘাতে উপকূলীয় এলাকায় গাছ উপড়ে গেছে, আবাসিক ভবন ও অফিসের জানালার কাঁচ ভেঙ্গে গেছে।

কাউলুনের একটি সুউচ্চ ভবনের বাসিন্দা ইলাইন অং বলেছেন, ‘এটা অনেক দীর্ঘ সময় ছিল, কমপক্ষে দুই ঘন্টা। এটা আমাকে হতবিহ্বল করে ফেলেছিল।’

হংকংয়ের একটি পূর্বাঞ্চলীয় জেলার কোথাও কোথাও পানি ৩ দশমিক ৫ মিটার উচ্চতায় প্লাবিত হয়েছে, পানির ঢেউয়ে তলিয়ে গেছে সড়ক ও কিছু আবাসিক ভবন।

স্থানীয় বাসিন্দা মার্টিন অং বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ‘আমার দেখা সবেচেয় বাজে ঝড় ছিল এটা। আমি এভাবে সড়ক পানিতে তলিয়ে যেতে এবং জানালা কাঁপতে দেখিনি।’

এদিকে জুয়ার জন্য বিখ্যাত চীনের স্বশাসিত অঞ্চল ম্যাকাওয়ের ক্যাসিনোগুলো বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। টাইফুন ম্যাংখুতের কারণে পর্যটক ও ক্যাসিনোগুলোর যাতে কোনো ক্ষয়ক্ষতি না হয় সেজন্য পূর্ব সতর্কতা হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen + 15 =