যেসব খাবার খেলে দীর্ঘজীবন পেতে পারেন!

স্বাস্থ্য ডেস্কঃ দীর্ঘজীবন লাভ সকলেরই চেষ্টা, তাই তো দীর্ঘজীবী হওয়ার নানা পন্থা বের করতে গবেষকরা নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছেন। সম্প্রতি এ বিষয়ে করা বেশকিছু গবেষণার ফলাফল জানিয়েছেন একজন বিশেষজ্ঞ। জার্মানির ডয়েচে-ভেলে জানাচ্ছে সে খবর। চলুন জেনে নিই সেই সব খাবার।

খাওয়ার পরিমাণ সামান্য কমিয়ে দেয়া:
মানুষ প্রতিদিন যা খাবার খান, তার চেয়ে ২০ ভাগ খাবার কম খাবেন। এতে জীবনীশক্তি বেড়ে রক্তচাপ, কোলেস্টোরেল এবং ডায়বেটিসের ঝুঁকি কমবে৷ বিভিন্ন গবেষণা থেকে পাওয়া এই তথ্যগুলো জানিয়েছেন জার্মান বিশেষজ্ঞ ডা. ভিমার।

‘ডিম’ স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়:
ডিমের কুসুমে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা ধমনির ইনফেকশন দমন করে এবং ডিমের সাদা অংশ রক্তের চাপ কমাতে সহায়তা করে। তাই প্রতিদিন সকালে একটি করে ডিম খেলে স্ট্রোকের ঝুঁকি কমতে পারে শতকরা ১২ ভাগ। যুক্তরাষ্ট্রের করা এক গবেষণা থেকে তথ্যটি জানা যায়।

লবণ কম খাওয়া:
রান্নায় অতিরিক্ত লবণ শরীরের ইমিউন সিস্টেম বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে দুর্বল করে রক্তের চাপকে বাড়িয়ে দেয়। বার্লিনের মাক্স ডেলব্র্যুক সেন্টারের করা এক সমীক্ষা থেকে তথ্যটি বেরিয়ে এসেছে।

সবুজ জুস:
সবুজ রঙের শাক-পাতার সঙ্গে একটি পাকা কলা, আম, কমলা আর এক টুকরো আদা ও পানি ব্লেন্ডারে মিশিয়ে নিন। প্রতিদিন এরকম করে এক গ্লাস জুস খান। এতে থাকা নাইট্রিক অ্যাসিড আপনাকে বার্ধক্যের নানা অসুখ-বিসুখ থেকে দূরে রাখতে সহায়তা করে।

আপেল ভিনেগার:
আপেলের জুস মেশানো ভিনেগার পেটের নানা সমস্যা দূর করে এবং পেটের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। তাই সকলের জন্যই প্রতিদিন দুই টেবিল চামচ আপেল ভিনেগার খাওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

মস্তিষ্কের ট্রেনিং:
নতুন কোনো ভাষা শেখা মস্তিষ্কের বুড়িয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়াকে দীর্ঘ করে। এ তথ্য জানা যায় স্কটল্যান্ডের এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সমীক্ষা থেকে।

রেড ওয়াইন ডায়বেটিসের ঝুঁকি কমায়:
সপ্তাহে দুই থেকে তিন গ্লাস রেড ওয়াইন নিয়মিত পান করলে নাকি টাইপ ‘টু’ ডায়বেটিসের ঝুঁকি কমে শতকরা ৩২ ভাগ।

ট্রাম্পোলিন:
ট্রাম্পোলিনে লাফালাফি করা ঠিক বাইরে হাঁটাহাটি করার মতোই কার্যকর। দিনে মাত্র ১৯ মিনিট ট্রাম্পোলিনে লাফালাফি করলে হার্ট যেমন ভালো থাকে, তেমনি ফুসফুসে অক্সিজেন ঠিকমতো চলাচলের কারণে মস্তিষ্কও থাকে সচল। অ্যামেরিকার স্যান ডিয়েগোতে করা এক গবেষণা থেকে জানা যায় তথ্যটি।

বিভিন্ন খাদ্যশস্য বা দানা:
আয়ু বাড়াতে নিয়মিত ওটস, গম ও বিভিন্ন দানাযুক্ত খাবার খাওয়া উচিত। নানা অসুখকে দূরে রেখে দীর্ঘজীবন লাভে সহায়তা করে শস্যদানা। অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডেলেইড শহরে করা এক সমীক্ষা থেকে জানা যায়, এসব দানা ও আঁশযুক্ত খাবার নানা অসুখকে দূরে রেখে দীর্ঘজীবন লাভে সহায়তা করে।

শাক-পাতা ও বাদাম:
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের রাশ বিশ্ববিদ্যালয়ের করা এক সমীক্ষা থেকে জানা যায়, প্রতিদিন শাক-পাতা ও এক মুঠো বাদাম খেলে আলৎসহাইমারের ঝুঁকি কমে শতকরা ৫৩ ভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + sixteen =